1. bd439364@gmail.com : BD FARIDPUR 24 : BD FARIDPUR 24
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
***পরীক্ষামূলক সম্প্রচার***
প্রধান খবর
করোনায় কারণে যে সংকট সৃষ্টি হয়েছে, একসাথে মোকাবেলা করতে হবে -শেখ হাসিনা। BOBPL সভাপতি আলহাজ্ব শেখ মোঃ ফজলুল হক করোনা থেকে নিজে বাচুন অন্যকে বাচাতে এগিয়ে আসুন। রাসুলুল্লাহ সাঃ,র জীবনি নিয়ে সংক্ষিপ্ত কিছু প্রশ্ন উত্তর। পবিত্র আশুরা সংক্ষিপ্ত বিবরণ আলহাজ্ব শেখ মোঃ ফজলুল হক,। বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব এক অবিচ্ছেদ্য অংশ। ১৯২০-১৯৭৫-১৫ আগষ্ট পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু,র কৃতিত্ব। বঙ্গবন্ধুর জুলিও কুরি পুরস্কার বঙ্গবন্ধু ঘোষিত বাঙালীর মুক্তির সনদ-৬ দফা ভাষা আন্দোলন বঙ্গবন্ধু। ২১-ফেব্রুয়ারী ভাষা আন্দোলনে বঙ্গবন্ধুর বলিষ্ঠ ভুমিকা। টুঙ্গিপাড়ার মুজিব কি ভাবে বঙ্গবন্ধু এবং জাতির পিতা হলেন জানুন- মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনায় শতভাগ বিদ্যুৎ।

১৬ সেপ্টেম্বর টিউলিপ এর শুভ জন্মদিন উপলক্ষে BOBPL সভাপতির পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন-

  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৫ বার পড়া হয়েছে

Φবঙ্গবন্ধুর নাতনী শেখ রেহেনার মেয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার আদরের ভাগনী ১৬ সেপ্টেম্বর শুভ জন্মদিন উপলক্ষে, বাংলাদেশ অনলাইন বঙ্গবন্ধু পরিষদ লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, সাবেক সহসম্পাদক কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপকমিটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, সময় অনলাইন টিভির প্রকাশক ও সম্পাদ, এবং BOBPLONLINENEWS, প্রোর্টাল এর প্রকাশক এবং সম্পাদক,, আলহাজ্ব শেখ মোঃ ফজলুল হক গণমাধ্যম কে দেওয়া এক শুভেচ্ছা বার্তায় টিউলিপ সিদ্দীকের সর্বঙ্গীন মঙ্গল কামনা দোয়া ও প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।               তিনি বলেন বঙ্গবন্ধুর দৌহিত্র রেজওয়ানা সিদ্দিকী টিউলিপ কে নিয়ে গর্ব করতেই পারে বাঙালী জাতি। বিলেতে নতুন প্রজন্মের বাঙালী প্রতিনিধি তিনি। জনপ্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বাঙালীর ঘরে জন্ম নিয়ে ব্রিটেনের শীর্ষ প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের তালিকায় যে চার বাংলাদেশীর নাম এসেছে, সে তালিকায় টিউলিপ অন্যতম স্থানে আছেন।

রাজনীতি যাঁর রক্তের উপাদান উত্তরাধিকার সূত্রে, তিনি বিশ্বের যে কোন স্থানে সক্রিয় হবেন, এতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। মায়ের একনিষ্ঠ যত্ন ও পারিবারিক ঐতিহ্য এই দুইয়ের মিশেলে তিনি নিজেকে গড়ে তুলেছেন। তাঁর পরিচয় এখন কারও কাছে অজানা নয়। সেই কোন্ সময় থেকেই আমরা শুনে আসছি, ‘বাঙালীর ছেলে বিজয় সিংহ হেলায় লঙ্কা করিল জয়।’ একালের বাঙালী মেয়ের লন্ডন জয় বাঙালীকে নতুন গৌরবে অভিষিক্ত করে। এই বাঙালী মেয়ে রিজওয়ানা সিদ্দিক টিউলিপ। যিনি উচ্চারণ করতে পারেন, ‘গ্রান্ড ফাদারের আদর্শই আমার চরিত্র গঠন করেছে। পারিবারিক ঐতিহ্যই আমাকে একজন স্ট্রং সোশ্যালিস্টে পরিণত করেছে।’

এই গ্রান্ড ফাদার আর কেউ নন, বাঙালীর হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এই বাঙালী কন্যাকে নিয়েই সাংবাদিক আবদুল গাফ্ফার চৌধুরীর প্রশংসা উচ্চারণ করে বলেছিলেন সন্দেহ নেই, বঙ্গবন্ধুও চাইতেন, বাঙালী তার জাতীয় স্বাতন্ত্র্য ও স্বাধীনতা নিয়ে জেগে উঠুক এবং বিশ্ব জাতীয়তার মোহনায় আপন বৈশিষ্ট্য নিয়ে মিলিত হোক। শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার ছেলেমেয়েরা তাঁর সেই সাধই পূর্ণ করেছে বলে মনে হয়। যদি তা না হতো তাহলে বিলেতে বাস করে, উচ্চশিক্ষা লাভ করে, চারদিকে এত অর্থবিত্তের পেশা থাকতে টিউলিপ রাজনীতিকে তাঁর পেশা হিসেবে গ্রহণ করতেন না।’

বাঙালী মেয়ে টিউলিপ নিজের চেষ্টাতেই আজকের এই অবস্থানে উঠে এসেছেন। হ্যাম্পস্টেড ও কিলবার্ন আসন থেকে ২০১০ সালে টিউলিপ প্রথম কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। ২০১৫ সালে এ আসন থেকে লেবার পার্টির হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি।



রাজনীতি ও সমাজকর্মে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন নানামুখী কাজের ভেতর দিয়ে। এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, ফিলিপ গ্লউড এ্যাসোশিয়েটস, সেভ দ্য চিলড্রেন, বেথনাল গ্রিন এ্যান্ড বো আসনের সাবেক লেবার এমপি ওনা কিং, টুটিং এলাকার লেবার এমপি, সাবেক মন্ত্রী ও বর্তমানে লন্ডনের নির্বাচিত মেয়র সাদেক খান, লেইটন ওয়ানস্টেড এলাকার সাবেক লেবার এমপি হ্যারি কোহেনের সঙ্গে কাজ করেছেন। ক্যামডেন ও ইজলিংটন এনএইচএস ফাউন্ডেশন ট্রাস্টের গবর্নর, কমনওয়েলথ জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশন ইউকের সদস্য ও এমপি টিসা জোয়েলের পলিসি এ্যাডভাইজার হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। লেবার পার্টির ইয়ং লেবার অফিসার হিসেবে কাজ করছেন টিউলিপ সিদ্দিক। লেবার নেতা এড মিলিব্যান্ডের লিডারশিপ ক্যাম্পেনের ফিল্ড ডেপুটি ডিরেক্টর ছাড়াও লন্ডন লেবার পার্টির প্রেস অফিসার, গ্রেটার লন্ডন অথরিটির রিসার্চার হিসেবে কাজ করার ব্যাপক অভিজ্ঞতায় সমৃদ্ধ তিনি।



আমাদের ভাবতে ভাল লাগে ব্রিটিশ এমপি হিসেবে লেবার পার্টির ছায়া মন্ত্রিসভায় সংস্কৃতি, মিডিয়া ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী মনোনীত হয়েছেন টিউলিপ। ব্রিটিশ রাজনীতিতে তিনি এরই মধ্যে একটি পাকা আসন তৈরি করতে পেরেছেন। আমরা আশা করি, এটা বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক রাজনীতিতেও সুদূরপ্রসারী শুভ প্রভাব বিস্তার করবে।

ইচ্ছাশক্তিই মানুষকে এগিয়ে নিয়ে যায়। এই ইচ্ছাশক্তির প্রমাণ আমরা পাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবারে। ১৯৭৫ সালে সপরিবারে জাতির পিতাকে হত্যার পর তাঁর জীবিত দুই কন্যার রাজনীতির প্রতি বিমুখ হওয়ার কথা ছিল। তাঁরা দেশ ও দেশের মানুষের প্রতি বীতশ্রদ্ধ হতে পারতেন। কিন্তু তাঁরা সে পথে যাননি। দেশের প্রতি ভালবাসার টানে দেশসেবাকেই ব্রত হিসেবে গ্রহণ করেছেন। এই পরিবারের তৃতীয় প্রজন্মের সদস্য টিউলিপ নিজেকে তাঁর পরিসরে যোগ্যতার সঙ্গে থাকতে চেয়েছেন।

তিনি তা পেরেছেনও যেখানে সংস্কৃতি সম্পূর্ণ আলাদা, সেখানে তিনি শুধু নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করেননি, নিজেকে গ্রহণযোগ্য হিসেবে গড়ে তুলেছেন। এসবই সম্ভব হয়েছে তাঁর ইচ্ছাশক্তির গুণে, যা তিনি অর্জন করেছেন তাঁর পারিবারিক সংস্কৃতি থেকে। তিনি সেই ঐতিহ্যের ধারক, যেখানে চ্যালেঞ্জ নেয়া থেকে তাকে পিছিয়ে আসতে দেখা যায়নি। টিউলিপ রিজওয়ানা সিদ্দিক প্রমাণ করেছেন, দূর প্রবাসেও বাঙালী নিজেকে তুলে ধরতে পারে। টিউলিপের এই অর্জন আমাদের সবাইকে গৌরবান্বিত করে। বাংলাদেশের মানুষও তাঁর কৃতিত্বের অংশীদার।

আজ তাঁর জন্মদিন। দক্ষিণ-পশ্চিম লন্ডনের মেরটন কাউন্সিলের মিটচাম এলাকায় ১৯৮২ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর টিউলিপ সিদ্দিকের জন্ম। বিলেতে বাঙালীর প্রতিনিধি হিসেবে এই সংগ্রামী জাতির মুখ আরও উজ্জ্বল করুন তিনি। জন্মদিনে তাঁকে আমাদের অন্তহীন শুভেচ্ছা। শুভ জন্মদিন টিউলিপ।

ভাল লাগলে এই পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই কেটাগরির আরো খবর
© All rights reserved 2020 bobplonlinenews
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD